বাড়িঅন্যান্যশ্রীমঙ্গলে শিশুকে আটকে রেখে ৩ বছর ধরে পাশবিক নির্যাতন

শ্রীমঙ্গলে শিশুকে আটকে রেখে ৩ বছর ধরে পাশবিক নির্যাতন

শ্রীমঙ্গলে ১০বছরের এক শিশুকে ৩বছর আটকে রেখে পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শহরের মুসলিমবাগ এলাকায় ‘পাখির বাসা’ নামক একটি বাসায় বাবা ও ২ ছেলে এই নির্যাতন চালাত বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বাধা দিলে গৃহকর্তীও শিশুটির উপর নির্যাতনে অংশ নেয়। ‘পাখির বাসা’র মালিক রনি শেখ ও তার পুত্র হাসান গত তিন বছর থেকে আরবি শেখদেও কায়দায় রুপার উপর শারীরিক ও যৌন নির্যাতন চালাতো। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার সকালে পুলিশ মুসলিম বাগ থেকে ১০বছর বয়সী রুপা অনামিকা নামে শিশুটিকে উদ্ধার করে।
এরআগে শুক্রবার রাতে রুপা নির্যাতন সহ্য না করতে পেরে পাশের বাসায় আশ্রয় নেয়। এ খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গল পৌরসভার মেয়রের ভাতিজা রাজ ও ভাই শাহীন আহমেদ ও ইসমাইল হোসেন নামে কয়েক যুবক শিশুটিকে উদ্ধারে উদ্যোগ নেয়। তারা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ও স্থানীয়দের সামনে শিশুটি তার উপর নির্যাতনের লোমহর্ষক বর্ণনা দেয়।
এসময় পুলিশ ওই বাসা থেকে শিশুটিকে নির্যাতনের অভিযোগে রনি শেখের পুত্র হাসানকে আটক করে। নির্যাতিত শিশু রূপা অনামিকা মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার চম্পারাই চা বাগানের বলে জানিয়েছে। সে তার বাবার নাম বলতে পারেনি। বাদল নামে এক কাকাকে সে বাবা বলে জানতো।
রূপা সাংবাদিকদের জানায়, ‘ছোট বেলায় তার বাবা মারা যায়। সেই থেকে কাকা বাদল অনামিকাকে সে বাবা বলে জানে। প্রায় ৩ বছর আগে বাদল কাকা শ্রীমঙ্গলের এই বাসায় কাজের জন্য রেখে যায়। এরপর তার বাবার মতো কাকা বা মা কেউ তাকে কখনও দেখতে আসেনি। ফোনেও খোঁজ নেয়নি। আর এই তিন বছর রনী শেখ ও তার ছেলে হাসান তার উপর অমানুষিক যৌন নির্যাতন চালায়। পা টিপে দেয়ার কথা বলে বিবস্ত্র করে অকথ্য নির্যাতন করতো। বাধা দিলে লাথি দিয়ে ছুঁড়ে ফেলে দিত। রনী শেখ এর স্ত্রী রোশনা বেগমও তাকে লাঠি দিয়ে মারধর করতো। গলা টিপে শূণ্যে উঠাতো ও নামাতো’। এসময় রূপা কাঁদতে কাঁদতে তার জামার অংশ খুলে পিঠে বিভিন্ন ক্ষত দেখায় স্থানীয়দের।
অন্যান্য দিনের মতো শুক্রবার রাতেও রনী শেখ ও তার পরিবারের লোকজন রূপাকে পাশকিক নির্যাতন করে। তার পরিধানের জামা ছিড়ে ফেলে। এক পর্যায়ে নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে বাসার দেয়াল টপকে পালিয়ে পাশের জনৈক আব্দুল বাসিতের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। আব্দুল বাসিত ঘটনা শুনে তাকে রাতে আশ্রয় দেয় এবং শনিবার সকালে স্থানীয়দের জানায়।
প্রতিবেশী আব্দুর রব জানায়, ‘প্রায় সময় এই বাসা থেকে কান্নার শব্দ শোনা যেত। প্রায় ১৫ দিন আগে মেয়েটি তার বাসায় এসে নির্যাতনের কথা জানায়। পরে রনী শেখ বুঝিয়ে মেয়েটিকে আবার তার বাসায় নিয়ে যায়’।
জানতে চাইলে রনী শেখ নির্যাতনের ঘটনা অস্বীকার করে কোন মন্তব্য করতে অস্বিকৃতি জানান।
শ্রীমঙ্গল থানার উপ পরিদর্শক তীতংকর বলেন, আটক হাসানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেয়া হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তি পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও তিনি জানান। শনিবার বিকালে একটি প্রভাবশালী মহল আটক হাসানকে ছাড়িয়ে নিতে তৎপরতা চালানোর খবর পাওয়া গেছে।

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments