বাড়িবাংলাদেশেসিলেটে সরস্বতী পূজায় মাইক ভাড়া না দিতে পুলিশের নির্দেশ!

সিলেটে সরস্বতী পূজায় মাইক ভাড়া না দিতে পুলিশের নির্দেশ!


সরস্বতী পূজায় মাইক ও সাউন্ড সিস্টেম ভাড়া না দিতে মালিক সমিতিকে নির্দেশ দিয়েছে সিলেট মহানগর পুলিশ । নির্দেশের পর কোনো পূজা মণ্ডপে মাইক বা সাউন্ড সিস্টেম ভাড়া না দেওয়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে সাউন্ড সিস্টেম মালিক কল্যাণ সমিতি সিলেট। এই সিদ্ধান্তে পূজার আয়োজকদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। ফলে ব্যবসায়ীরাও ক্ষতির মুখে পড়েছে। ১৬ ফেব্রুয়ারি ফেব্রুয়ারী হিন্দু সম্প্রদায়ের বিদ্যার দেবী সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত হবে।
জানা যায়, রোববার সিলেটের বিভিন্ন মাইক ও সাউন্ড সিস্টেম ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চিঠি দিয়ে মাইক ভাড়া না দেওয়ার নির্দেশনা প্রদান করে এসএমপি পুলিশ। সিলেট মহানগর পুলিশের নগর বিশেষ শাখার উপ কমিশনার সাক্ষরিত চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে ১৬ ফেব্রুয়ারি হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত হবে এবং ১৭ ফেব্রুয়ারি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হবে।
৬ ফেব্রুয়ারি সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ সদর দপ্তরের ৬ষ্ট তলায় বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাথে পূজা ও শোভাযাত্রা নিয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত মতবিনিময় সভায় সিদ্ধান্ত হয় যে, ঢাক ও ঢোলের মাধ্যমে উচ্চস্বরে নয় পূজা মন্ডপের ভেতরে ও শোভাযাত্রা সীমিত শব্দে শুধুমাত্র ভক্তিমূলক গান বাজানো হবে। মাইক / সাইন্ড সিস্টেম কোনো ভাবেই ব্যবহার করা যাবে না। উক্ত মতবিনিময় সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সরস্বতী পূজায় যাতে কোনো সাউন্ড সিস্টেম প্রতিষ্ঠান কর্তৃক কোনো সাউন্ড সিস্টেম / মাইক ভাড়া না দেওয়া হয় সে বিষয়ে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।
চিঠির বিষয়ে জানতে চাইলে সিলেট মহানগর পুলিশের গণমাধ্যমের দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত উপ কমিশনার ট্রাফিক জোর্তিময় সরকার বলেন, পুলিশের পক্ষ থেকে মাইক ও সাউন্ড সিস্টেম ব্যবসায়ীদের এরকম চিঠি দেওয়া হয়েছে। তবে পূজা মন্ডপে মাইক বা সাউন্ড সিস্টেম ব্যবহার না করার কোনো সিদ্ধান্ত পুলিশ নেয়নি। পূজা উদযাপন পরিষদের নেতারাই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। পূজা উদযাপন পরিষদের সিদ্ধান্তের বিষয়টি পুলিশ চিঠি দিয়ে ব্যবসায়ীদের জানিয়েছে।
তবে সিলেট মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত বলেন, শোভা যাত্রায় সাউন্ড সিস্টেম ব্যবহার না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা। তবে পূজার দিনে মাইক বা সাউন্ড সিস্টেম ব্যবহার না করার কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। বরং পূজার দিন রাত ১০টা পর্যন্ত সীমিত আকারে সাউন্ড সিস্টেম ব্যবহারের সিদ্ধান্ত হয়েছে।
রজত বলেন, পুলিশের চিঠি পাওয়ার পর ব্যবসায়ীরা পূজায় মাইক ও সাউন্ড সিস্টেম ভাড়া দিতে চাইছেন না। অনেক পূজা মণ্ডপ থেকে এরকমটি আমাকে জানানো হয়েছে। পূজার আয়োজকরা এনিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। আমরা পুলিশ ও ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে এবিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করছি।
এদিকে, পুলিশের চিঠি পেয়ে আজ সোমবার বৈঠকে বসে সিলেট মাইক এন্ড সাউন্ড সিস্টেম মালিক কল্যাণ সমিতি। সভায় পুলিশের নির্দেশনার কারণে সরস্বতী পূজার কোনো মণ্ডপে মাইক বা সাউন্ড সিস্টেম ভাড়া না দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।
এ ব্যাপারে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক নজিকুল ইসলাম রানা বলেন, হঠাৎ করে গতকাল পুলিশের পক্ষ থেকে চিঠি দিয়ে মাইক ও সাউন্ড সিস্টেম ভাড়া না দিতে বলা হয়েছে। পুলিশের এরকম নির্দেশনায় আমরা ব্যাপক আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছি। এছাড়া অনেকের কাছ থেকে আমরা ভাড়া বাবদ অগ্রিম টাকাও নিয়েছি। এখন তাদের সাথে সম্পর্কও নষ্ট হবে। এনিয়ে অপ্রীতিকর ঘটনাও ঘটতে পারে। তাই পুলিশের পক্ষ থেকে এরকম সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আমাদের সাথে কথা বলা দরকার ছিলো।
রানা বলেন, পুলিশের নির্দেশনা অমান্য করা আমাদের পক্ষ সম্ভব নয়। তাই আমরা পূজায় মাইক ও সাউন্ড সিস্টেম ভাড়া না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।
অপরদিকে, পুলিশের এমন নির্দেশনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সিলেটে সরস্বতী পূজার আয়োজকরা। নগরের দাড়িয়াপাড়া এলাকায় পূজার আয়োজকদের একজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সব কর্মকান্ডে মাইক সাউন্ড সিস্টেমের ব্যবহার হচ্ছে। তাতে পুলিশ বাধা দিচ্ছে না। কিন্তু কেবল পূজোর বেলায় তাদের আপত্তি কেনো?

RELATED ARTICLES

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments